Connect with us

ক্রীড়া প্রাঙ্গণ

তারকা খেলোয়াড়দের তথ্য পাচার, বিপদজনক হাতে আজ All India Chess Federation।

Published

on

Image Credit : Social Update

অর্নব রায় : খেলার জগতে একদিকে যখন অলিম্পিক আর মেসির গোল্ডেন বুটের রমরমা, সেই সময় সর্বভারতীয় দাবা ফেডারেশন (এআইসিএফ) থেকে উঠে আসছে আরও এক চাঞ্চল্যকর তথ্য।

ফেডারেশন এর সচিব ভগৎ সিং চৌহান এর বিরুদ্ধে বিশ্বনাথন আনন্দ, কোনেরু হাম্পি, সূর্যশেখর গঙ্গোপাধ্যায়ের মতো খেলোয়াড়দের ব্যক্তিগত তথ্য পাচার-সহ একগুচ্ছ অভিযোগ তুললেন এআইসিএফের যুগ্ম-সচিব অতনু লাহিড়ি।

গত শনিবার কলকাতা প্রেসক্লাবে এক বৈঠকে তিনি নথি ও দলিল সমেত এই চাঞ্চল্যকর বিষয়টি তুলে ধরেন সকলের সামনে। জানা গিয়েছে বিষয়টি শুধু তথ্য পাচার অব্দি সীমাবদ্ধ নয়, বরণ ফেডারেশনের প্রায় ৩ কোটি টাকার অপব্যবহার হয়েছে এবং এক বেসরকারি প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানির সঙ্গে একটি non-disclosure এগ্রিমেন্ট ভিত্তিতে তিনি এই তথ্য পাচার করেন।

Atanu Lahiri at press conference

পাশাপাশি ওই সংস্থার সঙ্গে যোগ থাকা অপর একটি সংস্থা সর্বভারতীয় দাবা ফেডারেশনের হয়ে দাবা খেলোয়াড়দের থেকে রেজিস্ট্রেশন ফি নিতে শুরু করে। যে বিষয়ে ঘুণাক্ষরেও জানতেন না ফেডারেশনের আধিকারিকরা।

ফেডারেশনের সচিব হওয়ার সুবাদে তার বিরুদ্ধে কেউ আওয়াজ উঠালে, তাকে ফেডারেশন থেকে বাতিল অথবা জীবনের মতন খেলা বন্ধ করে দেওয়ার উদাহরণ তিনি দিয়েছেন।

এই সমস্ত ঘটনা প্রাক্তন কমনওয়েলথ গেমস চ্যাম্পিয়ন অতনু , প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কে একটি ইমেইল এর মাধ্যমে নথি সহযোগে জানান। তিনি প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করেন, ভারতীয় দাবা খেলা আজ বিপদজনক হাতে; দাবার সুস্থ পরিবেশর দাবিতে প্রধানমন্ত্রী মোদীর হস্তক্ষেপ অনুরোধ করেছেন তিনি।

ক্রীড়া প্রাঙ্গণ

মেলবোর্নে দ্বিতীয় টেস্টে দুরন্ত জয় রাহানের নেতৃত্বাধীন ভারতের।

Published

on

Social Update Bengali News Image
Image Source AP Photo

বিক্রম দাঁ : অ্যাডিলেড টেস্ট ম্যাচে ৩৬ রানে অল আউট হয়ে লজ্জার রেকর্ড গড়েছিল ভারতীয় দল। মেলবোর্নে বক্সিং ডে টেস্টে ছিলেন না প্রথম দলের চার তারকা। আর মেলবোর্নে ভারতের রেকর্ডও খুব একটা সুখকর ছিল না। কিন্তু এ হেন প্রতিকূলতার মধ্যেই অজিঙ্কে রাহানের ভারত দেখিয়ে দিয়েছে, এভাবেও ফিরে আসা যায়।

বক্সিং ডে টেস্টে সিরিজে সমতা ফিরিয়ে যেন রূপকথার কাহিনি লিখে ফেলেছে টিম ইন্ডিয়া। তাই এই টেস্ট জয়ের স্বর্ণ পদক তার এই প্রাপ্য। অনবদ্য ঠান্ডা মাথার অধিনায়কত্ব হোক, কিংবা ব্যাট হাতে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়া, দ্বিতীয় টেস্টে নিজেকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছেন আজিংকে রাহানে । তাই এদিন টুইট করে ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলিও রানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

ম্যাচের আগে বিরাট বা সামির অনুপস্থিতি হোক বা খেলা চলাকালীন উমেশ যাদব এর ছোট হাওয়ার পরেও বোলিং ম্যানেজমেন্ট হোক সব দিকেই দারুন প্রতিভার পরিচয় দিয়েছে জিংকস। তবে এই ম্যাচ জেতার পর অধিনায়ক দলের ডেবিউ টান্টস সিরাজ আর শুভমণ এর অসাধারণ পারফরমেন্স এর কথা বলেছেন। আর বলবেননাই বা কেনো? ইশান্ত শর্মা ছিলেন না টেস্ট এ সেই জন্য তৃতীয় সিম বোলার হিসেবে যাদব সুযোগ পায়। তাতেই ভারতীয় দলের বোলিং ডিপার্টমেন্টকে দুর্বল বলেছিলেন অনেক ক্রিকেটর।

সমি দল থেকে বেরিয়ে গেলে সেখানে সিরাজ এর নতুন ও পুরনো বলে উইকেট নেওয়া র দক্ষতাই দারুন কাজে এসেছে ভারতের। এর পর গিল , আসন্ন দশ বছরে ব্যাটিং এ যে গিল এর রাজত্ব চলতে পারে এমনটা অনেক ক্রিকেটার বলছেন। যেমন টেকনিক তেমন শর্ট সিলেকশন । ভারতীয় ব্যাটিং এর ভবিষ্যত যে বেশ উজ্জ্বল তা বেশ পরিস্কার।

কোহলির নেতৃত্বেই প্রথম ম্যাচে লজ্জার সেই রেকর্ডটি করতে হয়েছে ভারতকে। তারপর আবার পিতৃত্বকালীন ছুটিতে দেশে ফিরে এসেছেন বিরাট। মেলবোর্ন টেস্টের আগে দল ছিল ছত্রভঙ্গ। ৪-০ তে হারের আশঙ্কা তাড়া করে বেড়াচ্ছিল দলকে। সেই আশঙ্কাকে ছুঁড়ে ফেলে দিয়ে মেলবোর্নে জয়ের শিরোপা উঠেছে ভারতের মাথায়। ক্যাপ্টেন কোহলি তাই বলছেন,”কী অসাধারণ জয়! গোটা দলের পারফরম্যান্স অনবদ্য। ছেলেদের জন্য অত্যন্ত খুশি। বিশেষ করে রাহানের জন্য। এর চেয়ে খুশির খবর হতে পারে না। এরপর আমাদের শুধু উপরের দিকে ওঠার পালা।

Continue Reading

জনপ্রিয় পোস্ট