Connect with us

বিশেষ

টিআরপি স্ক্যাম:বিএআরসির প্রাক্তন সিইও গ্ৰেপ্তার, রিমান্ড নোটে উল্লেখ অর্নবের ঘুষ দেওয়ার কথা

Published

on

Social Update Bengali News Image
Image Source Twitter

নিজস্ব প্রতিনিধি : মুম্বই পুলিশ সোমবার একটি স্থানীয় আদালতকে জানিয়েছে যে, বার্লোকড অডিয়েন্স রিসার্চ কাউন্সিলের (বিএআরসি) প্রাক্তন সিইও পার্থো দাশগুপ্তকে বিএআরসি-র আর একজন প্রাক্তন কর্মকর্তা এবং প্রজাতন্ত্র টিভির প্রধান সম্পাদক অর্ণব গোস্বামীর সাথে একাত্মতার অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছিলেন, রিপাবলিক টিভি এবং এর হিন্দি চ্যানেলের রেটিং পয়েন্টস (টিআরপি) বেআইনি ভাবে বৃদ্ধি করার জন্য।

মুম্বাই পুলিশের অপরাধ শাখা, ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে জমা দেওয়া রিমান্ড নোটে দাসগুপ্তের আরও হেফাজত চেয়েছে। পুলিশ দাবি করছে যে তিনি টিআরপি কেলেঙ্কারির “মাস্টারমাইন্ড”।

রিমান্ড নোটে বলা হয়েছে, যে দাশগুপ্ত এবং অন্যান্য আসামি (উভয়ের গ্রেপ্তারও চেয়েছিলেন) আর্থিক লাভের জন্য নির্দিষ্ট টিভি নিউজ চ্যানেলের টিআরপিতে হেরফের করেছিল।

পুলিশ দাবি করেছে যে, বিএআরসি-র প্রাক্তন সিওও রোমিল রামগড়িয়াও কয়েকটি নিউজ চ্যানেলের টিআরপি কারসাজির জন্য দাশগুপ্তের সাথে জড়িত ছিল।

রিমান্ড নোটে পুলিশ অভিযোগ করেছে, “দাশগুপ্ত তার অফিসিয়াল অবস্থানের অপব্যবহার করেছেন এবং এআরজি আউটিলার মিডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড যেমন প্রজাতন্ত্র ভারত হিন্দি এবং রিপাবলিক টিভি ইংলিশ দ্বারা প্রচারিত নির্দিষ্ট নিউজ চ্যানেলগুলির টিআরপি চালিত করেছিলেন।

পুলিশ রিমান্ড নোটে অভিযোগ করা হয়েছে যে গোস্বামী তৎকালীন সময়ে দাশগুপ্তকে “লক্ষাধিক টাকা প্রদান” করেছিলেন। দাশগুপ্তের বাসভবন থেকে জব্দ করা গহনা ও অন্যান্য মূল্যবান জিনিস উদ্ধার করা হয়। দাশগুপ্ত স্বীকার করেছেন যে, গোস্বামীর দেওয়া টাকা তিনি নিবন্ধ কিনতে ব্যবহার করেছিলেন।

রিমান্ড নোটটি বোঝার পরে ম্যাজিস্ট্রেট সোমবার গ্রেপ্তারকৃত দাশগুপ্তের পুলিশ হেফাজত ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়িয়ে দেন।

বিশেষ

টিআরপি স্ক্যাম : অর্ণব গোস্বামীর হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট সোশ্যাল-মিডিয়ায় ভাইরাল!

Published

on

Social Update Bengali News Image
Image Source Twitter

নিজস্ব প্রতিনিধি : সিএএ, এনআরসি হোক বা সুশান্ত সিং মৃত্যু মামলা, উদ্ধব সরকারের সঙ্গে সংঘাত হোক বা টিআরপি কেলেঙ্কারী, গত বছরেই একাধিক বিতর্কে জড়িয়ে বারংবার সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছেন রিপাবলিক টিভির এডিটর ইন চিফ অর্ণব গোস্বামী।

বলিউড সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু মামলার তদন্ত নিয়ে মুম্বই পুলিশের সঙ্গে প্রকাশ্যে বিতর্কে জড়িয়েছেন রিপাবলিক মিডিয়া নেটওয়ার্কের এডিটর ইন চিফ অর্ণব গোস্বামী। গত বছর অক্টোবর মাসে টিআরপি তালিকায় দেশে শীর্ষে থাকা এই নিউজ চ্যানেলের বিরুদ্ধে ভুয়ো টিআরপি রেটিং ব়্যাকেটে জড়িত থাকার অভিযোগ এনেছিলেন মুম্বই পুলিশ কমিশানার পরমবীর সিং।

[ আরো পড়ুন : গুগলে ‘chutiya news anchor’ লিখলেই সার্চ রেজাল্টে অর্ণব এর নাম!]

তখন মুম্বাই পুলিশ জানিয়েছিল, চ্যানেলের রেটিং বাড়ানোর জন্য অনৈতিকভাবে BARC-এর প্রাক্তন CEO পার্থ দাশগুপ্তকে লক্ষ লক্ষ টাকা ঘুষ দিয়েছিলেন অর্ণব গোস্বামী। তাও আবার একবার নয়, একাধিকবার বার্ক-প্রধান ‘ঘুষ’ নিয়েছেন বলে অভিযোগ।

গত ডিসেম্বর মাসে সংশ্লিষ্ট মামলায় এক ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে রিপাবলিক টিভির সম্পাদক অর্ণব গোস্বামীর বিরুদ্ধে ‘রিমান্ড নোট’ জমা দেয় মুম্বই পুলিশ। যে অভিযোগনামায় দাবি করা হয়েছে যে, নিজস্ব পদমর্যাদার অপব্যবহার করে পার্থ দাশগুপ্ত একাধিক চ্যানেলে টিআরপি এরপর করেছেন।

[ আরো পড়ুন : গুগলে “gujarati actor” লিখলেই সার্চ রেজাল্টে ভেসে আসছে নরেন্দ্র মোদীর ছবি! ]

এবার অর্ণব গোস্বামী এবং বার্কের সিইও পার্থ দাশগুপ্তের মধ্যে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট সোশ্যাল-মিডিয়ায় ভাইরাল। সেই হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট এ অর্ণব গোস্বামীর কিছু বক্তব্যের স্কিনশর্ট টুইটারে শেয়ার করা হয়েছে। সেই চ্যাটে টিআরপি কেলেঙ্কারি সাথে সম্পর্কিত অর্নবকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে সাহায্য চাইতে দেখা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই ব্রডকাস্ট অডিয়েন্স রিসার্চ কাউন্সিল বা বার্কের সিইও পার্থ দাশগুপ্ত মুম্বাই পুলিশি জেরায় অর্ণবের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকার ঘুষ নেওয়ার কথাও কবুল করেছেন। আর সেই টাকা নিয়েই রিপাবলিক টিভির দর্শক সংখ্যা বাড়াতে তিনি কারচুপি করেছিলেন বলে জানিয়েছিলেন পুলিশকে।

Continue Reading

জনপ্রিয় পোস্ট