Connect with us

বিনোদন

‘ডক্টর জি’ নামক এক নতুন চরিত্রে আয়ুষ্মান খুরানা।

Published

on

Social Update Bengali News Image
Image Source Twitter

নিজস্ব প্রতিনিধি : অনুভূতি কাশ্যপ দ্বারা পরিচালিত ডক্টর জি নামক আসন্ন ছবির মুখ্য ভূমিকায় এবার আয়ুষ্মান খুরানাকে একটু আলাদা মেজাজেই দেখা যাবে। ছবিটি ক্যাম্পাস কমেডি ড্রামা ভিত্তিক যেখানে আয়ুষ্মান ডাক্তারের ভূমিকায় নিজেকে ফুটিয়ে তুলবেন।

বরেলি কি বরফি(২০১৭), বধাই হো (২০১৮) র মত এই ছবিটিও জঙ্গলী পিকচার্স দ্বারা প্রযোজিত হতে চলেছে। অনুভূতি কাশ্যপকে অধিকাংশ সময় ডার্ক কমেডি ছবির পরিচালনায় দেখা গেছে। অনুভূতি কাশ্যপের আসন্ন ছবি ডক্টর জি র সংলাপ সুমিত সাক্সেনা, বিশাল ওয়াগট এবং সৌরভ ভারত দ্বারা রচিত। সুমিতের দুর্দান্ত কাজের প্রদর্শন এর আগেও আমরা পেয়েছি প্যার কা পঞ্চনামা ছবির মধ্যে দিয়ে। ফলে আসন্ন ছবিটি ভালো না হওয়ার পিছনে কোনো কারণই নেই বললে চলে।

পরিচালক অনুভূতির কথায় স্পষ্ট বোঝা গেছে যে তিনি খুবই উৎসাহী একজন বহুমুখী প্রতিভাবান শিল্পী আয়ুষ্মান খুরানা এবং জঙ্গলী পিকচার্স নামক নামী প্রযোজক সংস্থার সঙ্গে কাজ করতে পেরে। তার কথায়, “আমার আসন্ন ছবিটি দেশের যুবক তথা পরিবারবর্গ সবার আবেদনকে মাথায় রেখে তৈরি করা হবে”।

অবশেষে অভিনেতা আয়ুষ্মান খুরানার কথায় জানা গেছে যে,” ডক্টর জি নামক এই দুর্দান্ত স্ক্রিপ্টটি পড়া মাত্রই প্রেমে পড়ে গেছি।যেমন উদ্ভাবনীয় এর ধারণা তেমনি অদ্বিতীয় লেখনশৈলী, একধারে জনতাকে হাসাতে এবং ভাবাতে বাধ্য করে তুলবে। জীবনে প্রথমবার ডক্টরস দের কোট পরার সৌভাগ্য হয়েছে। কাজটা খুব ভালোভাবেই উপস্থাপন করবো”।

বিনোদন

ডিজিটাল মাধ্যমে কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব পালন।

Published

on

Social Update Bengali News Image
Image Source Twitter

নিজস্ব প্রতিনিধি : এই সংকটকালীন মুহূর্তে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম কেই এবার আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব পালনের চাবিকাঠি হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। আজ বিকেল ৪ টে নাগাদ ভার্চুয়ালের মধ্য দিয়ে ২৬ তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব টি আমাদের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর হাত ধরে প্রকাশ পায়। অনুষ্ঠানের সূচনা পর্বে শাহরুখ খান ও সম্মিলিত ছিলেন।

উৎসবটি প্রতিবারের মতো এবারও নিজের পরিসর এবং খ্যাতি বিরাজ করে অনলাইনে নিজের জায়গা করে নিয়েছে। বছরের শেষ দিক করে প্রতিবছর উৎসবটি অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে, কিন্তু অতিমারির কারণে এবার জানুয়ারি মাসে টানলেও নিজের কোনো রকম ত্রুটি রাখে নি। ৮১ টি পূর্ণ দৈর্ঘ্যের ফিচার ছবি, ৫০ টি স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি এবং তথ্যচিত্র এবার উৎসবে দেখানো হবে।

উৎসবটির সূচনা পর্বে থাকবে বিশেষ চমক। ‘অপুর পাঁচালি’র হাত ধরে ঘটবে এর শুভ সূচনা। বাংলা চলচ্চিত্র জগতের কিংবদন্তি অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় কে শ্রদ্ধা জানিয়ে তার মোট ৯ টি ছবি দেখানো হবে। ৮ টি প্রেক্ষাগৃহ মিলিয়ে জোর কদমে মেতে উঠবে এই চলচ্চিত্র উৎসব।

আন্তর্জাতিক বিভাগকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা উৎসবটিতে যেসব ছবি দেখানো হবে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো, ইজরায়েলের পরিচালক আমোস গিতাই পরিচালিত ‘লায়লা ইন হাইফা’। নারীকেন্দ্রিক ছবি নির্মাণ গিতাইয়ের ছবি নিয়ে অনেকেই কল্পনাপ্রবণ । কার্ল মাক্সের কনিষ্ঠা কন্যা ইলিয়ানরের জীবন-নির্ভর ছবি ‘মিস মার্ক্স’ও থাকবে। সাথে এক সাঁতারুর সংগ্রাম নিয়ে তৈরি কানাডিয়ান ছবি ‘নাদিয়া, বাটারফ্লাই’ ও থাকবে । ফিলিপিন্সের পরিচালক লাভ ডায়াজের ‘লাহি, হেয়প’ দেখতে আগ্রহী অনেকেই।

সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন। দেরি করে হলেও উৎসবে মেতে ওঠার কোনো খামতি চোখে পড়বে না বলে মুখ্যমন্ত্রীর দাবি। অনলাইনের মাধ্যমে টিকিটের সমস্ত ব্যবস্থা সুসম্পন্ন হয়েছে। টুইটারের মাধ্যমে দিদি জানিয়ে দিয়েছেন যে, আমাদের একসঙ্গে মিলে এই অতিমারি জয় করতে হবে কিন্তু তার মধ্যে উদযাপন ও থেমে থাকবে না। ২০২০ তে চলে যাওয়া বহু শিল্পীদের স্মৃতিচারণ করা হবে সাথে তাদের শ্রদ্ধা জানানো হবে। মাস্ক এবং স্যানিটাইজারকে একমাত্র সম্বল বানিয়ে হাজারো সিনেমাপ্রেমী জনতা ডিজিটালে র সঙ্গে পা মেলাতে এবার প্রস্তুত।

Continue Reading

জনপ্রিয় পোস্ট