Connect with us

প্রযুক্তি

অবশেষে অপেক্ষার অবসান, আইফোন ১২ লঞ্চ আগামী সপ্তাহে!

Published

on

Social Update Bengali News Image
Image Source Twitter

নিজস্ব প্রতিনিধি : গত মাসে অর্থাৎ সেপ্টেম্বরে জনপ্রিয় টেক ব্যান্ড অ্যাপেল (Apple)‘টাইম ফ্লাইস’ নামের একটি ইভেন্টের আয়োজন করেছিল। সেই ইভেন্টে অ্যাপেল ওয়াচ সহ কয়েকটি প্রডাক্ট লঞ্চ করা হয় এবং সেখানেই ঘোষণা করা হয় যে, কয়েক সপ্তাহ পরে আরও একটি ইভেন্টের আয়োজনের মাধ্যমে তাদের আগামী স্মার্ট ফোনের বহিঃপ্রকাশ ঘটবে। জানা যাচ্ছে আগামী মঙ্গলবার সংস্থার সোশ্যাল অ্যাপেল ইভেন্ট (Social Apple Event) অনুষ্ঠিত হবে যেখানে আইফোন ১২ লঞ্চ হবে।

সংস্থার তরফ থেকে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে লঞ্চ হচ্ছে iPhone 12 ও iPhone 12 Pro। ফোন গুলির প্রি-অর্ডার দেওয়া যাবে ১৬ বা ১৭ তারিখ, অর্ডারের শিপিং শুরুহতে পারে ২৩ বা ২৪ তারিখ থেকে। iPhone 12 mini-র প্রি অর্ডার দেওয়া যেতে পারে ৬ বা ৭ নভেম্বর থেকে এবং মডেলটির শিপিং শুরু হতে হতে ১৩ বা ১৪ নভেম্বর হবে। iPhone 12 Pro Max-এর প্রি-অর্ডারশুরু হতে পারে ১৩ বা ১৪ নভেম্বর থেকে যার শিপিং শুরু হতে পারে ২০ বা ২১ নভেম্বর থেকে।

আইফোন ১২ মিনি (iPhone 12 mini)-র আকার (ডিসপ্লে সাইজ) হতে পারে ৫.৪ ইঞ্চি অন্য দিকে iPhone 12-এর আকার হতে পারে ৬.১ ইঞ্চি। iPhone 12 Pro-র আকারও ৬.১ ইঞ্চি হতে পরে বলে মনে করা হচ্ছে। iPhone 12 Pro Max-এর আকার হতে পারে ৬.৭ ইঞ্চি, যা কিনা বর্তমান বাজারের বাকি ফোন গুলির থেকে একটু বড়ো। iPhone 12 mini-র দাম থাকতে পারে ৬৯৯ মার্কিন ডলার থেকে ৭৪৯ মার্কিন ডলারের মধ্যে (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৫১,০০০-৫৪,৬০০ টাকা)। iPhone 12 Max-এর দাম থাকতে পারে ৭৯৯ মার্কিন ডলার থেকে ৮৪৯ মার্কিন ডলারের মধ্যে (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৫৮,০০০-৬২,০০০ টাকা)। iPhone 12Pro ও iPhone 12 Pro Max-এর দাম থাকতে পারে ১,২০০ মার্কিন ডলারের মধ্যে (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৮৭,৬৯৯ টাকা)।

1 Comment

1 Comment

  1. জীবন ভট্টাচার্য

    November 6, 2020 at 10:07 pm

    দেখলাম, বড়োই আশ্চর্য এই টেক কোম্পানি, আগের বার হেডফোন জ্যাক পোর্ট সরিয়ে ছিল এই বার চার্জার টাই হওয়া করে দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রযুক্তি

‘100% নিশ্চিত থাকতে পারেন’, ব্যক্তিগত সুরক্ষার প্রশ্নে জানালো হোয়াটসঅ্যাপ!

Published

on

Social Update Bengali News Image
Image Source Pixabay

নিজস্ব প্রতিনিধি : বর্তমান প্রজন্ম থেকে শুরু করে বয়স্ক মানুষ আনকেই হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন। তথ্য আদান-প্রদানের ভাল মাধ্যম হোয়াটসঅ্যাপ। তবে বেশ কয়েকদিন ধরেই হোয়াটসঅ্যাপ-এর প্রাইভেসি পলিসি নিয়ে বিতর্ক চলছে। সেই বিতর্ক হল, আপনার মোবাইল নম্বর, ফোনের তথ্য, আইপি অ্যাড্রেস, গ্রাহকের বার্তা বিনিময়ের প্রকৃতি, লেনদেনের তথ্য, লোকেশন হিস্ট্রি এবং আরও একাধিক তথ্য হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ তুলে দিতে পারে Facebook-কে।

Social Update Bengali News Image
Image Source Twitter

হোয়াটসঅ্যাপের নতুন পলিসি তে সম্মতি আপনি এখনই বা পরে জানাতে পারেন। কিন্তু ৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে সম্মতি না দিলে এই অ্যাপের পরিষেবা আর পাবেন না। হোয়াটসঅ্যাপ ইউজার প্রাইভেসি পলিসি বদল সংক্রান্ত নতুন নিয়মে হোয়াটসঅ্যাপ থেকে মুখ ফেরাতে শুরু করেছেন গ্রাহকরা। এবার সেই বিতর্কের মাঝেই হোয়াটসঅ্যাপ মুখ খুলল।

এদিন হোয়াটসঅ্যাপের তরফে একটি ট্যুইট করে বলা হচ্ছে, ‘বাজারে গুজব রটছে, আর তার উত্তরে আমরা জানাতে চাই যে, এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশনে আপনার গোপন মেসেজ যে WhatsApp সুরক্ষিত রাখবে সে বিষয়ে 100% নিশ্চিত থাকতে পারেন।’ তাদের দাবি হোয়াটসঅ্যাপে প্রাইভেট মেসেজ থেকে শুরু করে গ্রুপ চ্যাট, কন্ট্যাক্টস, কলস, এবং ডেটা সবই সুরক্ষিত থাকবে।

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, হোয়াটসঅ্যাপ যেখানে বলছে গ্রাহকের সব তথ্য নিরাপদেই রয়েছে, তা সত্ত্বেও তো Google সার্চে তথ্য ফাঁস হচ্ছে গ্রাহকদের। WhatsApp-এর জবাব, আপনারা চাইলে মেসেজ তো অদৃশ্যও করে দিতে পারেন ডিসঅ্যাপিয়ার মেসেজ (disappear messages) ফিচারের সাহায্যে, তাই ইউজারের তথ্য ফাঁস করে দেওয়ার কোনও প্রশ্নই ওঠা উচিত নয়।

Continue Reading

জনপ্রিয় পোস্ট